Ajker Digonto
সোমবার , ২১ অক্টোবর ২০১৩ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. অর্থনীতি
  4. আইন- আদালত
  5. আইন-আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আলোচিত মামলা
  8. খুলনা
  9. খেলা
  10. খেলাধুলা
  11. চট্টগ্রাম
  12. চট্টগ্রাম বিভাগ
  13. জাতীয়
  14. ঢাকা
  15. তথ্য প্রযুক্তি

সংবাদ সম্মেলনে বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়ার পুরো বক্তব্য

প্রতিবেদক
Staff Reporter
অক্টোবর ২১, ২০১৩ ৭:২০ অপরাহ্ণ
সংবাদ সম্মেলনে বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়ার পুরো বক্তব্য

21 Oct Khaleda Zia

বসিমল্লিাহরি রাহমানরি রাহমি

প্রয়ি সাংবাদকি বন্ধুগণ,
আসসালামু আলাইকুম।
জাতীয় জীবনরে এই ক্রান্তকিালে আমি আপনাদরে মাধ্যমে প্রয়ি দশেবাসীর উদ্দশেে কছিু কথা বলতে চাই। আজ এমন এক সময়, যখন আমাদরেকে ঠকি করতে হব,ে আমরা তারা গণতন্ত্র নাকি স্বরৈশাসনকে বছেে নবেো। দশেরে অবস্থা সর্ম্পকে আপনারা জাননে। গত কয়কে বছরে একরে পর এক ঘটে গছেে নানান র্মমান্তকি ঘটনা। রানা প্লাজা ধ্বসে হাজাররে বশেি শ্রমজীবী মানুষরে করুণ মৃত্যু হয়ছে।ে এতে দশেবাসী স্তম্ভতি। এই শোচনীয় ঘটনা বশ্বিববিকেকওে নাড়য়িে দয়িছে।ে শয়োরবাজাররে নষ্ঠিুর লুণ্ঠনে ৩৩ লক্ষ ক্ষুদ্র বনিয়িোগকারী পথে বসছে।ে হলর্মাক, ডসেটনি,ি ব্যাংকরে তহবলি তছরুপ, পদ্মা সতেু কলেংেকারীর মতো ঘটনা কবেল কল্পনাতীত র্দুনীতরিই চত্রি নয়, বশ্বিে আমাদরেকে নানাভাবে কলংকতি করছে।ে দশেরে একমাত্র নোবলে বজিয়ী প্রতষ্ঠিান গ্রামীণ ব্যাংক দখলরে চষ্টো এবং নোবলে লরয়িটে ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে হনেস্তা, সম্মানতি নাগরকিদরে অসম্মান, মানবাধকিার র্কমী আদলিুর রহমান খান ও সাংবাদকি মাহমুদুর রহমানরে ওপর নর্বিতনরে ঘটনা সমাজরে শ্রদ্ধাভাজন ব্যক্তদিরে আতংকতি করছে।ে এই সাম্প্রতকি বছরগুলোতে ইতহিাসরে পৃষ্ঠা নাগরকিদরে রক্তে সক্তি হয়ছে।ে ঢাকায় হফোজতরে সমাবশেে নষ্ঠিুর আক্রমণ, পলিখানা হত্যাযজ্ঞ, বচিার বহর্ভিূত অবাধ হত্যাকা-, ইলয়িাস আলী, চৌধুরী আলম, শ্রমকি নতো আমনিুলসহ বহু রাজনতৈকি নতো-র্কমীর গুম, খুন জনজীবনকে আতঙ্কতি করে রখেছে।ে বচিারবভিাগরে ওপর হস্তক্ষপে ও নগ্ন দলীয়করণে মানুষ ন্যায়বচিার থকেে বঞ্চতি। সাংবাদকি দম্পত্তি সাগর-রুন,ি নাটোররে বড়াইগ্রাম উপজলো চয়োরম্যান বাবু হত্যাকারীরা বচিাররে আওতায় আসনে।ি ক্ষমতাসীনরা দ্রুত পয়েে যান তাদরে কাঙ্খতি রায়। খুনরে মামলার আসামীরা মুক্তি পায় রাষ্ট্রপতরি ক্ষমায়। আইনরে শাসন সুদূর-পরাহত। প্রশাসন, পুলশিকে সংর্কীণ দলীয় র্স্বাথে ব্যবহার এবং সরকারি দলরে ছাত্র ও যুব শাখার সন্ত্রাসী র্কাযক্রম শান্তপ্রিয়ি নাগরকিদরে উদ্বগেরে কারণ হয়ে দাঁড়য়িছে।ে হন্দিু ও বৌদ্ধ র্ধমাবলম্বীদরে সম্পদ দখল, তাদরে উপসনালয়ে হামলার নৃশংস ঘটনা আমাদরেকে কলংকতি করছে।ে জাতীয় ঐক্যকে করছেে বপিন্ন।

এই অবস্থায় জাতীয় ঐক্যকে সংহত করা এবং জনমনে আস্থা ফরিয়িে আনা এখন অতীতরে যে কোনো সময়রে চয়েে বশেি জরুরি হয়ে পড়ছে।ে
মুসলমান-হন্দিু-বৌদ্ধ-খৃষ্টান, পাহাড়রে মানুষ-সমতলরে মানুষ, ধনী-দরদ্রি নর্বিশিষেে সকলে মলিে আমাদরেকে গড়ে তুলতে হবে জাতীয় ঐক্য। গড়তে হবে অখ- জাতীয় সত্ত্বা।

আমাদরেকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে গণতন্ত্ররে জন্য। একত্র হতে হবে আজকরে অনশ্চিয়তা থকেে মুক্তরি জন্য। পরর্বিতনরে জন্য।

বাংলাদশেরে মানুষ সহজাতভাবইে গণতন্ত্রপ্রয়ি। গণতন্ত্ররে জন্য তারা অনকে ত্যাগ স্বীকার করে এসছে।ে এর জন্য আমরা গৌরব অনুভব কর।ি

এই গণতন্ত্র রক্ষার জন্য একটি অবাধ, সুষ্ঠু, নরিপক্ষে, ও প্রতদ্বিন্দ্বতিার্পূণ জাতীয় নর্বিাচনরে মাধ্যমে শান্তপর্িূণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তররে পথ খুলে দয়ো ছাড়া আর কোনো বকিল্প নইে। সইে পথ কভিাবে রুদ্ধ করা হয়ছেে আপনারা জাননে। আমি আর এখন বস্তিারতি ববিরণ দতিে চাইনা।

উপস্থতি সাংবাদকিবৃন্দ,
আপনারা জাননে, বএিনপি ও ১৮ দলীয় জোটসহ সকল বরিোধীদল ও বাংলাদশেরে জনগণ জাতীয় নর্বিাচনকালীন একটি নর্দিলীয় নরিপক্ষে সরকাররে দাবতিে র্দীঘদনি ধরে সোচ্চার। আমরা শান্তপর্িূণ পন্থায় এই আন্দোলনকে এগয়িে নয়িছে।ি মূলত: গণসংযোগ ও প্রচারাভযিানরে মাধ্যম।ে আমাদরে সইেসব শান্তপর্িূণ ও নয়িমতান্ত্রকি র্কমসূচতিওে কভিাবে বাধা দয়ো হয়ছেে এবং হচ্ছে তা আপনারা ভালোভাবইে জাননে। তবুও আমরা শান্তি বজায় রাখতে এবং জনসাধারণরে র্দুভোগরে কথা চন্তিা করে কঠনি ও র্দীঘময়োদী কোনো র্কমসূচতিে যাইন।ি আমরা বরাবর আশা কর,ি সরকার জনগণরে দাবরি প্রতি সম্মান দখোবে এবং আর্ন্তজাতকি সম্প্রদায়রে প্রত্যাশার অনুকূলে ইতবিাচক সদ্ধিান্ত নবে।ে কন্তিু তাদরে অনড় অবস্থান এবং জনসাধারণ ও বরিোধীদলরে প্রতি যুদ্ধংদহেী আচরণ সকলকে হতাশ করছে।ে সাধারণ নর্বিাচন ঘনয়িে আসার পটভূমতিে গত ১৮ অক্টোবর সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী জাতরি উদ্দশেে ভাষণ দয়িছেনে। সকলরে আশা ছলি, এই ভাষণে দশেবাসীর আশা-আকাঙ্খার সঙ্গে মলি রখেে আলোচনা ও সমঝোতার ভত্তিতিে জাতীয় নর্বিাচনকালীন নর্দিলীয় নরিপক্ষে সরকার গঠনরে ব্যাপারে সুষ্পষ্ট বক্তব্য থাকব।ে কন্তিু তা না থাকায় প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ বরিোধী রাজনতৈকি দলগুলো ও সচতেন দশেবাসীকে হতাশ করছে।ে ইতোমধ্যে ব্যক্ত প্রতক্রিয়িা থকেে তা পরষ্কিার হয়ে গছে।ে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে তাঁর সরকাররে উন্নয়নরে যে ফরিস্তিি দয়ো হয়ছেে আমি সে সর্ম্পকে মন্তব্য করবো না। কোন্‌ সরকাররে আমলে দশে কতটা এগয়িছেে ও পছিয়িছেে তা দশেবাসী ভালো জাননে। কতটা শান্ততি,ে স্বস্ততি,ে নরিাপত্তায় তারা আছনে, উন্নতরি ফল তারা কতটা ভোগ করছনে তা’ জনগণ তাদরে নত্যিদনিরে জীবন-যাপন ও অভজ্ঞিতার মধ্য দয়িে বুঝতে পারনে। তবে তনিি তার স্বভাবসুলভ ভঙ্গীতে অতীতে ফরিে গয়িে আমাদরে সরকাররে আমল নয়িে অসত্য বভিন্নি মন্তব্য করছেনে। এ সর্ম্পকে আমি সংক্ষপেে কছিু কথা বলবো। আমাদরে সময়ে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদরে বস্তিাররে অভযিোগ তনিি তুলছেনে। দশেবাসী জাননে, এই সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদরে বস্তিার আওয়ামী লীগরে বগিত সরকাররে আমলইে ঘটছেলি। যশোরে উদীচীর গানরে আসর,ে রমনার বটমূলে র্বষবরণ অনুষ্ঠান,ে পল্টনে সপিবিরি জনসভাসহ বভিন্নি রাজনতৈকি সমাবশেে এবং খুলনায় আহমদয়িা সম্প্রদায়রে উপসনালয়,ে বানয়িারচরে খ্রষ্টিান সম্প্রদায়রে র্গীজায় জঙ্গী ও সন্ত্রাসী হামলায় বহু নরিাপরাধ মানুষ জীবন দয়িছে।ে

প্রধানমন্ত্রীর নজিরে জলো গোপালগঞ্জে বপিুল আকৃতরি শক্তশিালী বোমা পাওয়ার ঘটনা তাঁর আমলইে ঘটছেলি। কোনো ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বচিার হয়ন।ি বরং প্রকৃত সন্ত্রাসী ও জঙ্গীদরে আড়াল করে বরিোধী দলরে বরিুদ্ধে বষিোদ্‌গার ও দায়ত্বিশীল নতোদরে গ্রফেতার করে হনেস্তা করা হয়ছে।ে আওয়ামী লীগরে আমলে সৃষ্ট এই জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস আমাদরে সরকাররে আমলওে অব্যাহত ছলি। তবে আমরা জঙ্গীদরে সনাক্ত করতে সক্ষম হই। তাদরে সংগঠন ও তৎপরতা নষিদ্ধি কর।ি র্শীষ জঙ্গীনতোদরে গ্রফেতার ও তাদরে বচিাররে ব্যবস্থা কর।ি আমাদরে সরকাররে আমলইে র্শীষ জঙ্গীদরে বচিারে মৃত্যুদ- হয়, পরে তা র্কাযকর করা হয়ছে।ে আমাদরে র্সবাত্মক প্রয়াসে জঙ্গীবাদরে নটেওর্য়াক সর্ম্পূণ ভঙ্গেে দয়ো সম্ভব হয়। আমরা সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ দমনে এলটি র্ফোস র‌্যাপডি অ্যাকশন ব্যাটালয়িন (র‌্যাব) গঠন কর।ি এই বাহনিী ব্যাপক সাফল্য ও সুনাম র্অজন কর।ে র‌্যাবকে আমরা কখনো বরিোধী দলরে র্কমসূচি দমনরে কাজে অথবা অন্য কোনো রাজনতৈকি বা দলীয় র্স্বাথে ব্যবহার করনি।ি আমরা এই দমন অভযিানরে পাশাপাশি মুসলমি প্রধান এই দশেে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদরে বরিুদ্ধে জনমতকে সংগঠতি করার জন্য র্ধমপ্রাণ মানুষ ও আলমে সমাজকওে কাজে লাগাই। এতে জঙ্গীবাদরে বরিুদ্ধে র্ধমপ্রাণ মানুষরোও সোচ্চার হয়ে উঠনে। অপর পক্ষে শান্তপ্রিয়ি র্ধমীয় সংগঠন ও র্ধমভত্তিকি নয়িমতান্ত্রকি রাজনতৈকি দলগুলোর সঙ্গে জঙ্গীবাদকে একাকার করে দখোর ভুল নীতি গ্রহণরে কারণে আওয়ামী লীগরে সরকাররে আমলে সমাজে উত্তজেনা ও সংঘাত বড়েছে।ে এতে করে জঙ্গীবাদ বরিোধী র্কাযক্রম ক্ষতগ্রিস্ত হয়ছে।ে আমি র্দ্ব্যথহীন ভাষায় বলতে চাই য,ে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদবরিোধী আর্ন্তজাতকি লড়াইয়ে বাংলাদশে এক গুরুত্বর্পূণ অংশীদার। আমাদরে সরকাররে আমলে আমরাই এর সূচনা করছে।ি আগামীতে এ লড়াই কবেল অব্যাহতই থাকবে না, সন্ত্রাস বরিোধী আর্ন্তজাতকি কোয়ালশিনরে সক্রয়ি সদস্য হসিবেে অন্যান্য দশে ও সংস্থার সঙ্গে মলিে এই সহযোগতিা আরো বাড়াবার উদ্যোগ আমরা নবে। আমাদরেকে মনে রাখতে হব,ে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ শান্তি ও স্থতিশিীলতার শত্রু। সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ টকেসই র্অথনতৈকি উন্নয়ন ও বদৈশেকি বনিয়িোগকে ব্যাহত কর।ে র্সবোপর,ি এই সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ আমাদরে জাতীয় র্স্বাথকে বপিন্ন কর,ে আমাদরে সংখ্যাগরষ্ঠি জনগণরে র্ধম পবত্রি ইসলাম ও মুসলমানদরে সুনাম ক্ষুন্ন কর।ে আর্ন্তদশেীয় এই অপরাধ বাংলাদশেরে শুধু নয়, বশ্বিরে নাগরকিদরে জীবনমানকে হুমকরি মুখে ঠলেে দয়ে। বাংলাদশেরে মাটকিে দশেীয়, আঞ্চলকি ও আর্ন্তজাতকি অথবা অন্য কোনো ধরনরে সন্ত্রাসী তৎপরতায় কখনো ব্যবহার করতে না দয়োর ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সকল প্রকার পদক্ষপে গ্রহণে আমরা দৃঢ় অঙ্গীকারাবদ্ধ।

সমবতে সাংবাদকিবৃন্দ,
এ প্রসঙ্গে আমি আরো কছিু কথা আজ দশেবাসীর উদ্দশেে বলতে চাই। বশ্বিরে প্রায় ছয়-ভাগরে একভাগ মানুষ দক্ষণি এশয়িা অঞ্চলে বাস কর।ে ভুগোল, সীমানা পরেয়িে প্রবহমান নদ-নদী, ইতহিাস, অভন্নি সংস্কৃত,ি ভাষা এবং পরচিতিবিোধ আমাদরেকে সতেুবন্ধনে আবদ্ধ করছে।ে এই অঞ্চলরে দশেগুলোর কোনোটইি নজিদেরেকে সরয়িে নতিে কংিবা বচ্ছিন্নি রাখতে পারবে না। তাই আমরা জনগণরে সর্মথনে আগামীতে সরকারে গলেে প্রতবিশেী দশেগুলোর সঙ্গে মলিে আমরা একযোগে কাজ করবো। বদ্যিমান সর্ম্পক বহাল রাখার পাশাপাশি রাজনতৈকি, র্অথনতৈকি, নরিাপত্তা, সাংস্কৃতকি ও সামাজকি খাতে সহযোগতিা বাড়াবার নতুন পথরে সন্ধান আমরা করবো। আমি বশ্বিাস কর,ি শান্ত,ি স্থতি,ি নরিাপত্তা ও আঞ্চলকি সহযোগতিা এই অঞ্চলরে জনগণরে জীবনমানরে উন্নয়ন ও বকিাশরে ভত্তি।ি এই চারটি বষিয়কে দক্ষণি এশয়িার জনগণরে অভন্নি স্বপ্ন রূপায়নরে অপরহর্িায উপাদান বলওে আমি মনে কর।ি একথা অস্বীকার করার জো নইে য,ে এই অঞ্চলরে প্রতবিশেী দশেগুলোর মধ্যে নানা রকম সমস্যা রয়ে গছে।ে এবং কছিু সমস্যা হয়তো ভবষ্যিতওে থাকব।ে পৃথবিীর অন্যান্য অঞ্চল থকেে এটা কোনো আলাদা চত্রি নয়। তবে একই সঙ্গে আমি মনে কর,ি কোনো সমস্যাই সমাধানরে অযোগ্য নয়।

পারষ্পরকি র্স্বাথ ও র্মযাদা বজায় রখেে আন্তরকি সংলাপ ও অব্যাহত মত বনিমিয়রে মাধ্যমে আমরা প্রতবিশেী দশেগুলোর মধ্যকার বরিাজমান সমস্যাবলী নরিসন করতে পার।ি তবে সমস্যা নরিসনরে জন্য কবেল সরকাররে সঙ্গে সরকাররে আলোচনাই যথষ্টে নয়। প্রয়োজন পারষ্পরকি আস্থা গড়ে তোলা এবং এক্ষত্রেে জনগণরে সঙ্গে জনগণরে সর্ম্পক স্থাপনকে আমরা গুরুত্ব দবে। আমরা যদি আগামীতে সরকারে যতেে পারি তাহলে আমরা কোনো দলরে সরকার হবার বদলে জনগণরে সত্যকিাররে প্রতনিধিি হবো। আমাদরে আগামী প্রজন্ম যাতে একটি উন্নত জীবনমান পায় আমরা সে ধরণরে নীতমিালার বাস্তবায়ন করবো। আমরা পশ্চাৎমুখী হবো না। আমাদরে দৃষ্টি হবে সম্মুখপ্রসারী। আমরা এমন সব নীতমিালা গ্রহণ করবো যাতে সমাজরে সকল স্তরে ও খাতে টকেসই উন্নয়ন ঘটতে পার।ে আজকরে দুনয়িা একটি বশ্বি-সমাজে পরণিত হয়ছে।ে কোনো দশে ও অঞ্চলই এখন আর বচ্ছিন্নি দ্বীপ হয়ে থাকতে পারে না। তাই আমাদরেকে বশ্বি-সমাজরে শরকি হসিবেে ভূমকিা ও অবদান রাখতে হব।ে বাংলাদশে অস্থতিশিীল হলে দক্ষণি এশয়িা অস্থতিশিীল হব।ে আর দক্ষণি এশয়িা অস্থতিশিীল হলে বশ্বিসমাজে তার প্রভাব পড়ব।ে সে কারণইে আমরা এমন নীতি গ্রহণ করবো যা দশেরে এবং আঞ্চলকি শান্ত,ি স্থতিশিীলতা ও নরিাপত্তা জোরদার করব।ে শান্তপর্িূণ ও নরিাপদ এক বশ্বিসমাজ গড়ে তুলতে বাংলাদশে ও আমাদরে প্রতবিশেী সকল দশে যাতে ইতবিাচক অবদান রাখতে পারে আগামীতে আমাদরে সরকার স-েভাবইে কাজ করব।ে

সাংবাদকি বন্ধুগণ,

বাংলাদশেী হসিবেে আমরা নানা গৌরবগাঁথায় পরপর্িূণ এবং উজ্জল ভবষ্যিতরে সম্ভাবনাময় এক মহান জাত।ি সাংস্কৃতকি, নৃতাত্ত্বকি, র্ধমীয় পরচিয় নর্বিশিষেে আমাদরে সকলরে পরচিয় আমরা বাংলাদশেী।

এদশেরে প্রতটিি নাগরকিরে সংবধিান ও আইনরে আওতায় সুরক্ষা ও নরিাপত্তা পাবার অধকিার সর্ম্পূণ সমান।
আমাদরে উদ্বগেরে বষিয় হচ্ছ,ে নৃতাত্ত্বকি ও র্ধমীয় পরচিয়ে যারা সংখ্যায় কম, সইে নাগরকিরা অনকে সময় অরক্ষতি হয়ে পড়নে। কখনো কখনো তারা নরিাপত্তা-ঝুঁকতিে থাকনে।

আইনরে আওতায় তারা যথাযথ নরিাপত্তা ও সুরক্ষা পান না। তাদরে বাড়-িঘর ও উপসনালয়ে হামলার মতো ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘট।ে তাদরে সম্পদ দখল করা হয়। তারা নজিরোও আক্রান্ত ও হনেস্তার শকিার হন। এটা পুরোপুরি বন্ধ করতে হব।ে আমরা সরকারে গলেে সকল নাগরকিরে সমনরিাপত্তা নশ্চিতি করবো।

কোনো সম্প্রদায়রে জীবন, সম্পদ, উপাসনালয় ও সম্ভ্রমরে ওপর হামলা হলে এর জন্য দায়ী ব্যক্তদিরে আইনামলে এনে কঠোর শাস্তি নশ্চিতি করা হব।ে
সাম্প্রতকিকালে বৌদ্ধ ও হন্দিু সম্প্রদায়রে লোকদরে ওপর আক্রমণ ও ধ্বংসযজ্ঞরে ঘটনায় উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন বচিার বভিাগীয় তদন্ত কমটিি গঠনরে জন্য আমরা বারবার আহ্বান জানয়িছে।ি র্বতমান সরকার তা করনে।ি

আমরা সরকারে গলেে এ জাতীয় সকল ঘটনার ব্যাপারে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন বচিার বভিাগীয় তদন্ত কমটিি গঠন করে অপরাধীদরে চহ্নিতি ও শাস্তবিধিান নশ্চিতি করা হব।ে

সংযম ও সহষ্ণিুতাই হচ্ছে সভ্যতার লক্ষণ। আমাদরেকে র্সবোচ্চ সংযম ও সহষ্ণিুতা র্অজন করতে হব।ে আমরা যে সমাজে বাস করি সখোনে কবেল ভন্নিমত প্রকাশরে সুযোগ থাকাই যথষ্টে নয়। চন্তিার বভিন্নিতা ও বচৈত্র্যিকে আমাদরে স্বাগত জানাতে হবে এবং ভন্নিমতকে সম্মান দতিে হব।ে আমাদরেকে অবশ্যই বচৈত্র্যিরে মধ্যে জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে হব।ে আমাদরে ভবষ্যিত নর্ভির করে এমন এক বাংলাদশে গড়ার ওপর, যখোনে র্ধম, গোত্র, নৃতাত্ত্বকি পরচিয় ও রাজনতৈকি মতামত নর্বিশিষেে সকল নাগরকি তাদরে উন্নত জীবনরে স্বপ্ন বাস্তবায়নরে সমান সুযোগ ও অধকিার পাব।ে যখোনে প্রত্যকেে বাস করতে পারবে শান্তপর্িূণ ও নরিাপদ পরবিশে।ে যখোনে প্রত্যকেরে জীবন, সম্পদ ও সম্ভ্রমরে নরিাপত্তা হবে সর্ম্পূণ হুমকমিুক্ত।

আমি বহুবার বলছে,ি আজ আবারো বলছ,ি আমরা বাংলাদশেরে কোনো নাগরকি কংিবা গোষ্ঠীকে সংখ্যালঘু বলে ববিচেনা করনিা। আমাদরে সকলরে অভন্নি পরচিয় – আমরা বাংলাদশেী।

সাংবাদকি ভাই-বোনরো,

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতরি উদ্দশেে তাঁর ভাষণওে আমার, আমার সরকার, দল, পরবিার ও রাজনতৈকি র্কাযালয় সর্ম্পকে অনকে কুৎসা রটয়িছেনে। আমি এর পাল্টা বক্তব্য দতিে চাই না। প্রধানমন্ত্রী, তার পরবিাররে সদস্যর্বগ ও আত্মীয়-স্বজন সর্ম্পকে বস্তিার অভযিোগ ও তথ্য থাকা সত্বওে আমি এ নয়িে কোন কথা বলতে চাইনা। আমি মনে কর,ি অনকে হয়ছে।ে বাংলাদশেরে সুরুচবিান মানুষ আর এসব শুনতে চান না। আমাদরেকে এই অপ-সংস্কৃতি থকেে বরেয়িে আসতে হব।ে আমাদরেকে জাতরি আশা-আকাঙ্খার আলোক,ে সময়রে দাবি অনুযায়ী নতুন ধারার রাজনীতি প্রর্বতন করতে হব।ে রাজনতৈকি সংস্কৃতকিে বদল করার, উন্নত করার এখন সময় এসছে।ে এর সূচনা কাউকে না কাউকে করতইে হব।ে আজ আমি আপনাদরে সামনে সইে পরর্বিতনরে আহ্বান নয়িে এসছে।ি আমাদরে মধ্যে রাজনতৈকি মতর্পাথক্য থাকবইে। বর্তিকরে মধ্য দয়িে আমরা মতক্যৈে পৌঁছাবার চষ্টো করবো। কন্তিু সইে বর্তিকে অনকে সময় শোভনীয়তার সীমা ছাড়য়িে যায়। পারষ্পরকি র্মযাদা ক্ষুন্ন কর।ে এই ধারার পরর্বিতন করতে হব।ে রাজনীতরি পরভিাষা শোভন, র্মাজতি ও যুক্তনিষ্ঠি হতে হব।ে

রাজনতৈকি বর্তিকে অতীতর্চচ্চা, ব্যক্তগিত ও অশালীন আক্রমণ বন্ধ করা দরকার। তার বদলে আমরা বর্তিক করবো আমাদরে রাজনতৈকি র্দশনরে উৎর্কষতা নয়ি।ে বাংলাদশেরে বরিাজমান সমস্যা ও সংকট সমাধানরে পন্থা নয়িে আমরা বর্তিক করবো। ব্যক্তগিত আক্রমণ কোনো সুফল বয়ে আননো। এতে মূলত ক্ষতগ্রিস্ত হয় দশেরে নাগরকিরো।

কারণ রাজনতৈকি অঙ্গনরে ব্যক্তগিত রষোরষেতিে সরকাররে করণীয় প্রধান কাজগুলো কম গুরুত্ব পায় এবং এতে হংিসা ও হানাহানি প্রশ্রয় পায়। রাজনীতি অস্থরি ও স্থতিশিীলতা বপিন্ন হয়।

প্রয়ি সাংবাদকিবৃন্দ,

আপনারা জাননে এবং আমি নজিওে বুঝি য,ে পরর্বিতনরে কথা কবেল মুখে বলাই যথষ্টে নয়। কনেনা এদশেরে জনগণ অতীতওে পরর্বিতনরে অঙ্গীকার রাজনীতকিদরে কণ্ঠে শুনছে।ে সে কারণে আজ আমি আপনাদরে মাধ্যমে খুব স্পষ্ট করে একটি কথা বলে এই পরর্বিতনরে সূত্রপাত ঘটাতে চাই। আমি র্দ্ব্যথহীন কণ্ঠে ঘোষণা করছি য,ে যারা আমার এবং আমার পরবিাররে সদস্যদরে বরিুদ্ধে অতীতে নানা রকম অন্যায়-অবচিার করছেনে, ব্যক্তগিত আক্রমণ করছেনে এবং এখনো করে চলছেনে, আমি তাদরে প্রতি ক্ষমা ঘোষণা করছ।ি আমি তাদরেকে ক্ষমা করে দলিাম। সরকারে গলেওে আমরা তাদরে বরিুদ্ধে কোনো প্রতশিোধ নবেো না। আমি কথা দচ্ছি,ি আমার দৃষ্টি নবিন্ধ থাকবে বাংলাদশেরে জন্য একটি উজ্জল ও অধকি নরিাপদ ভবষ্যিত নশ্চিতি করার কাজ।ে প্রতশিোধ নয়োর, প্রতহিংিসা চরতর্িাথ করার মতো কোনো ইচ্ছা ও সময় আমার নইে। আমি প্রতশিোধ-প্রতহিংিসা মটোবার জন্য কোনো সময় ব্যয় করবো না। আমি আশা কর,ি একটি সুন্দর ভবষ্যিত গড়ত,ে আগামী প্রজন্মরে জন্য একটি সমৃদ্ধ, শান্তমিয় ও নরিাপদ আবাসভূমি গড়ে তুলতে আগামী দনিে আমরা সকলে মলিে একসাথে কাজ করবো। আমি তাদরে সকল ইতবিাচক ধ্যান-ধারণা, পরার্মশ এবং অবদান ও অংশগ্রহণকে স্বাগত: জানাবো। সুচন্তিা ও ভালো পরকিল্পনা কোনো একটি রাজনতৈকি দলরে একার এখতয়িারে নইে। আমরা যদি জাতি হসিাবে আমাদরে সকল সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে চাই, আমরা যদি নাগরকিদরে উন্নত জীবনরে সন্ধান দতিে চাই, তাহলে রাজনতৈকি, নৃতাত্ত্বকি ও র্ধমীয় পরচিয়ে পরচিতি সমাজরে প্রতটিি অঙ্গনরে নাগরকিদরে সক্রয়ি অংশগ্রহণরে সুযোগ নশ্চিতি করতে হব।ে তাদরে সকলরে ভাবনা থকেে উপকৃত হবার সদচ্ছিা আমাদরে থাকতে হব।ে আগামীতে আমাদরে সরকার হবে বাংলাদশেরে সকল নাগরকিরে প্রতনিধিত্বিকারী সরকার। আমাদরে সরকার হবে মধো ও মনণশীলতার সরকার। জাতীয় ঐক্যরে সরকার। যারা সমাজরে জন্য অবদান রাখতে পারনে, যারা দশেরে জন্য সুনাম বয়ে আননে, যারা সৎ-যোগ্য-দক্ষ, যারা সুষ্ঠু পরকিল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করতে পারনে, যারা নতেৃত্ব দতিে পারনে, রাজনতৈকি মত-র্ধম-নৃতাত্ত্বকি পরচিয় নর্বিশিষেে সইে সব মধোবী ও যোগ্য নাগরকিদরেকে আমি আগামী দনিরে জাতীয় ঐক্যরে সরকাররে সঙ্গে কাজ করার আমন্ত্রণ জানয়িে রাখছ।ি

প্রয়ি সাংবাদকিবৃন্দ,
মানুষ ভুল-ত্রুুটরি র্ঊধ্বে নয়। এবং একথা স্বীকার করতে আমার কোনো দ্বধিা নইে য,ে অতীতে আমাদরেও ভুল-ভ্রান্তি হয়ছে।ে তবে একই সঙ্গে আমি বলতে চাই য,ে আমরা ঐসব ভুল থকেে শক্ষিা নয়িছে।ি আগামীতে একটি উজ্জল, অধকি স্থতিশিীল ও সমৃদ্ধ ভবষ্যিতরে পথে বাংলাদশেকে এগয়িে নতিে আমরা ভালোভাবে প্রস্তুতি নয়িছে।ি আমি সইে প্রবচনরে সঙ্গে একমত য,ে ইতহিাস থকেে শক্ষিা না নলিে ইতহিাসরে পুনরাবৃত্তি ঘট।ে তাই আমরা অতীতরে ভুলগুলোর পুনরাবৃত্তি করবো না।

সাংবাদকি ভাই-বোনরো,

আমরা সকলে জান,ি এখন সারা দশে পরর্বিতনরে জন্য উন্মুখ। গণতান্ত্রকি ধারাকে অক্ষুন্ন রখেে শান্তপর্িূণপন্থায় ক্ষমতা হস্তান্তর নশ্চিতি করতে হলে সুষ্ঠু, অবাধ, নরিপক্ষে এবং সকল দলরে অংশগ্রহণরে ভত্তিতিে একটি প্রতদ্বিন্দ্বতিার্পূণ নর্বিাচনরে কনেো বকিল্প নইে। এই লক্ষ্যই জাতীয় নর্বিাচনকালীন নর্দিলীয়-নরিপক্ষে সরকাররে দাবি আমরা তুলছে।ি সকল বরিোধীদল ও দশেরে জনগণরে বপিুল সর্মথনে এই দাবি আজ জাতীয় দাবতিে পরণিত হয়ছে।ে কন্তিু র্দুভাগ্যরে বষিয়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাঁর ভাষণে যা-কছিু বলছেনে তা জাতরি আশা-আকাঙক্ষার সঙ্গে সামঞ্জস্যর্পূণ নয়। কনেনা এতে সুষ্ঠু, অবাধ, নরিপক্ষে জাতীয় নর্বিাচন ও সকল দলরে অংশগ্রহণ নশ্চিতি করা সম্ভব হবে না। তনিি সংবধিানরে যে দোহাই দচ্ছিনে, তা তারা নজিরোই যথচ্ছো রদবদল করে সংকট সৃষ্টি করছেনে। সুষ্ঠু নর্বিাচনরে পথ রুদ্ধ করছেনে এবং জনগণরে ভোটাধকিার হরণরে সুযোগ তরৈি করছেনে। প্রধানমন্ত্রী তার প্রস্তাবে নর্বিাচনকালীন র্সবদলীয় সরকাররে যে অষ্পষ্ট ধারণা তুলে ধরছেনে তাতে সইে অন্তর্বতী সরকার প্রধান কে হবনে তা খোলাসা করনেন।ি এতে নাগরকিদরে মধ্যে এই সংশয় রয়ে গছেে য,ে তনিি সংসদ বহাল ও নজিরে হাতে ক্ষমতা ও প্রশাসন কুক্ষগিত রখেে বরিোধী দলকে এক অসম প্রতযিোগতিায় আহ্বান জানাচ্ছনে। এটি জনগণরে কাছে গ্রহণযোগ্য হয়ন।ি তনিি নর্বিাচনকালীন নর্দিলীয় নরিপক্ষে সরকাররে গণদাবি সর্ম্পকে কোনো আলোচনার অবকাশ না রখেে একতরফাভাবে শুধুমাত্র নজিরে সুবধিা অনুযায়ী একটি প্রস্তাব তুলছেনে।

তনিি কবেল নর্বিাচনরে তারখি নয়িে বরিোধীদলরে পরার্মশ চয়েছেনে। তাঁর এ বক্তব্যে জাতি হতাশ হয়ছে।ে আমি এখনো মনে কর,ি আলোচনার মাধ্যমইে বষিয়টরি সুরাহা করা দরকার। এবং সটো যত দ্রুত হয়, ততই মঙ্গল। সে জন্য বএিনপি ও ১৮ দলরে পক্ষ থকেে জনগণরে আশা-আকাঙক্ষার আলোকে একটি সুনর্দিষ্টি প্রস্তাব মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্দশেে আমি এখন উপস্থাপন করছ।ি ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে নর্দিলীয় নরিপক্ষে তত্ত্বাবধায়ক সরকাররে অধীনে সকল দলরে অংশগ্রহণভত্তিকি দুটি গ্রহণযোগ্য নর্বিাচন অনুষ্ঠতি হয়ছেলি। ওই দুটি সরকাররে উপদষ্টোরা তাদরে নরিপক্ষেতার জন্য সকল মহলে প্রশংসতি হয়ছেলিনে। ঐ দুটি নর্বিাচনে একবার আওয়ামী লীগ ও একবার বএিনপি বজিয়ী হয়ে সরকার গঠন কর।ে আমি প্রস্তাব করছ,ি ওই দুই সরকাররে ২০ জন উপদষ্টোর মধ্য থকেে র্বতমান সরকারি দল ৫ জন এবং বরিোধী দল ৫ জন সদস্যরে নাম প্রস্তাব করবনে। তারাই আসন্ন নর্বিাচনকালীন সরকাররে উপদষ্টো হবনে। আমার প্রস্তাব, সরকারী ও বরিোধীদলরে ঐক্যমতরে ভত্তিতিে সকলরে কাছে গ্রহণযোগ্য একজন সম্মানতি নাগরকিকে এই অন্তর্বতীকালীন সরকাররে প্রধান উপদষ্টো হসিাবে নর্ধিারণ করা হব।ে আমি আশা করি শান্ত,ি স্থতিশিীলতা ও গণতন্ত্ররে র্স্বাথে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমার প্রস্তাব গ্রহণ করবনে।

আমি আশা কর,ি তনিি এব্যাপারে দুই পক্ষরে মধ্যে দ্রুত আলোচনার র্কাযকর উদ্যোগ নবেনে। সাংবধিানকিভাবে এই নর্বিাচনকালীন সরকার ব্যবস্থা প্রর্বতনে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণরে জন্যও আমি তাঁর প্রতি উদাত্ত্ব আহ্বান জানাচ্ছ।ি আমি আরও বলতে চাই য,ে র্বতমান সংসদ ভঙ্গেে যাবার আগে প্রয়োজন বোধে ঐ অন্তর্বতীকালীন সরকারকে নর্বিাচতি করে দতিে পার।ে সংসদ যভোবে রাষ্ট্রপত,ি স্পকিার ও সংরক্ষতি মহলিা আসনরে সদস্যদরে নর্বিাচতি করে থাক।ে

প্রয়ি সাংবাদকিবৃন্দ,

আমি আশা কর,ি বর্পিযয় মোকাবলিায় সক্ষম এ জাতি অচরিইে এ রাজনতৈকি সংকট থকেে মুক্তি পাব।ে সইে লক্ষ্যইে আমি এ প্রস্তাব তুলে ধরলাম। আমরা সংঘাত নয়, সমঝোতা চাই। স্বরৈশাসন নয়, গণতন্ত্র চাই। আমরা লগ-িবঠৈার তা-ব, গান পাউডার দয়িে পুড়য়িে বাস যাত্রীদরে হত্যা, অফসি যাত্রীদরে দগিম্বর করার কুসংস্কৃতি থকেে বরেয়িে আসতে চাই। বাংলাদশেরে মানুষ অনশ্চিয়তা থকেে মুক্তি এবং পরর্বিতনরে প্রত্যাশায় উন্মুখ হয়ে আছ।ে
আসুন, আমরা সকলইে তাদরে সইে প্রত্যাশার প্রতি ইতবিাচক সাড়া দইে।

আপনাদরে সকলকে ধন্যবাদ।
আল্লাহ হাফজে। বাংলাদশে জন্দিাবাদ।

সর্বশেষ - অন্যান্য